বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ০২:৫৯ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং
জনপ্রিয় অনলাইন সংবাদের পাতায় আপনাকে স্বাগতম
গৃহবধূকে দলবেঁধে ধর্ষণের আলামত পায়নি মেডিকেল বোর্ড

গৃহবধূকে দলবেঁধে ধর্ষণের আলামত পায়নি মেডিকেল বোর্ড

গৃহবধূকে দলবেঁধে ধর্ষণের আলামত পায়নি মেডিকেল বোর্ড

Spread the love

নোয়াখালী প্রতিনিধি: নোয়াখালীর কবিরহাটের ধানসিঁড়ি ইউনিয়নের নবগ্রামে দলবেঁধে গৃহবধূকে ধর্ষণের আলামত পায়নি মেডিকেল বোর্ড। ইতোমধ্যে ডাক্তারি প্রতিবেদন নোয়াখালী জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে।

নোয়াখালী জেনারেল হাসাপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. খলিল উল্যাহ জানান, নির্যাতিতা নারীর শারীরিক বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষা করে ধর্ষণের কোনো আলামত পায়নি গঠিত মেডেকিলে বোর্ড। ওই প্রতিবেদন বুধবার বিকেলে নোয়াখালী জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে।

তবে তিনি এ কথাও জানান যে, বিভিন্ন কারণে ডাক্তারি পরীক্ষায় ধর্ষণের আলামত পাওয়া না গেলেও এটি বলা যাবে না যে ওই নারী ধর্ষণের শিকার হয়নি। এ ঘটনার বিভিন্ন সাক্ষ্যতেও তার প্রমাণ করা যাবে। এতে হতাশ হওয়ার কিছুই নেই।

এদিকে মামলাটি কবিরহাট থানা থেকে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) তদন্ত করছে। আজ বৃহস্পতিবার ভোরে কুমিল্লার গুনবতি ইউনিয়নের দশবাহা এলাকায় অভিযান চালিয়ে জামাল উদ্দিন (২৮) নামে আরও এক আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের ওসি জাকির হোসেন জানান, মামলার প্রধান আসামি জাকের হোসেন জহির আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকরোক্তিমূলক জবানবন্দিতে যে ৫ জনের নাম বলেছিলেন তাদের মধ্যে জামাল উদ্দিনের নাম রয়েছে। ঘটনার পরপরই সে এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায়।

তিনি আরও জানান, এ মামলায় এর আগে মোট চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। তাদের মধ্যে নির্যাতিতা নারীর দেবরসহ আবদুর রব মান্না, সেলিম ও হারুন অর রশিদের আদালত চারদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করলে মঙ্গলবার তাদের জেলা কারাগার থেকে ডিবি কার্যালয়ে এনে জিজ্ঞাসবাদ করা হচ্ছে। এ ঘটনায় জড়িত অন্যদেরও গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ১৮ জানুয়ারি গভীর রাতে নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলা ধানসিঁড়ি ইউনিয়নের নবগ্রামে প্রথমে ঘরের সিঁদ কেটে প্রবেশ করে ও পরে পুলিশ পরিচয় দিয়ে সাত থেকে আটজনের একটি দল তিন সন্তানকে অস্ত্রের মুখে বেঁধে ওই নারীকে গণধর্ষণ করে।


Comments are closed.




© All rights reserved © 2018 sangbaderpata.Com
কারিগরি সহায়তায় ইঞ্জিনিয়ার বিডি