বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ০২:১১ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং
জনপ্রিয় অনলাইন সংবাদের পাতায় আপনাকে স্বাগতম
নিজ ঘরে প্রবেশের আগে দোয়া ও আমল কেন করবেন?

নিজ ঘরে প্রবেশের আগে দোয়া ও আমল কেন করবেন?

নিজ ঘরে প্রবেশের আগে দোয়া ও আমল কেন করবেন?

Spread the love

ধর্ম ডেস্ক: ঘর নিজের হোক কিংবা অন্যের; তাতে প্রবেশের আগে রয়েছে কিছু নিয়ম, আমল এবং দোয়া। ঘরে প্রবেশের সময় সালাম, দোয়া, জিকির-আজকার ও আমল মূলত কুরআন-সুন্নাহর নির্দেশ। ঘরে প্রবেশে নিয়ম মানলে, হাদিসে বর্ণিত আমল ও দোয়া করলে মিলবে অসামান্য কল্যাণ ও উপকারিতা।

নিজ ঘর কিংবা বাড়িতে প্রবেশের নিয়ম, আমল ও দোয়া গুলো সবার জন্যই জরুরি। এতে ঘরের মানুষ যেমন নিরাপদ থাকে, তেমনি শয়তানের আক্রমণ থেকেও রক্ষা পাওয়া যায়। ঘরে প্রবেশ করার সময় ঘরে অবস্থানকারীদের সালাম দেয়ার নির্দেশ এসেছে কুরআনে। এ সম্পর্কে আল্লাহ তাআলা বলেন-

‘অতপর যখন তোমরা ঘরে প্রবেশ কর, তখন (ঘরে অবস্থানকারী) তোমাদের স্বজনদের প্রতি সালাম বলবে। এটা আল্লাহর কাছ থেকে কল্যাণময় ও পবিত্র দোয়া। এমনিভাবে আল্লাহ তোমাদের জন্যে আয়াতসমূহ বিশদভাবে বর্ননা করেন, যাতে তোমরা বুঝে নাও।’ (সুরা নুর : আয়াত ৬১)

এ আয়াতে ঘরে প্রবেশের আগে ঘরে অবস্থানকারীদের সালাম দেয়াকে কল্যাণ লাভের মাধ্যম এবং দোয়া হিসেবে অভিহিত করা হয়েছে। যার বিনিময়ে মহান আল্লাহ দান করবেন রহমত ও অনুগ্রহ।

> ঘরে প্রবেশের দোয়া
কুরআনের নির্দেশনা অনুযায়ী ঘরে প্রবেশের সুন্নাত আমলসমূহের মধ্যে অন্যতম হলো- সালাম দেয়া, দোয়া পড়া, জিকির-আজকার করা, এবং মেসওয়াক করা। হাদিসের বর্ণনা অনুযায়ী বাড়িতে প্রবেশের সময় এ দোয়া পড়া-
بِسْمِ اللَّهِ وَلَجْنَا، وَبِسْمِ اللَّهِ خَرَجْنَا، وَعَلَى اللَّهِ رَبِّنَا تَوَكَّلْنَا
উচ্চারণ : ‘বিসমিল্লাহি ওয়ালাঝনা; ওয়া বিস‌মিল্লাহি খারাঝনা; ওয়া আলাল্লাহি রাব্বিনা তাওয়াক্কালনা।’
অর্থ : ‘আল্লাহ্‌র নামে আমরা (ঘরে) প্রবেশ করলাম, আল্লাহর নামেই আমরা (ঘর থেকে) বের হলাম এবং আমাদের রব আল্লাহ্‌র উপরই আমরা ভরসা করলাম।’ অতপর ঘরের লোকদের সালাম দিয়ে প্রবেশ করা।’ (আবু দাউদ)

> ঘরে প্রবেশে আল্লাহর সাহায্য চাওয়া
ঘরে প্রবেশে দোয়ার পাশাপাশি জিকির-আজকার তথা আল্লাহকে স্মরণ করা। আল্লাহ তাআলাকে স্মরণ করলে তিনি মানুষকে শয়তানের কুপ্ররোচনা ও আক্রমণ থেকে হেফাজত করেন। এ সম্পর্কে হাদিসের নির্দেশনা রয়েছে। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন-

‘যখন তোমাদের কেউ ঘরে প্রবেশ করে, আর প্রবেশের সময় ও খাবারের সময় আল্লাহকে স্মরণ করে, তখন শয়তান (নিজ সঙ্গীদের ডেকে) বলে, তোমাদের কোনো বাসস্থান নেই, তোমাদের রাতের কোনো খাবারও নেই।’ (মুসলিম)

> ঘরে প্রবেশের পর আমল
ঘরে প্রবেশের অন্যতম আমল হলো- মেসওয়াক করা। প্রিয় নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম কোথাও থেকে ফিরে আসলে, ঘরে প্রবেশের পর মেসওয়াক করতেন। হাদিসে এসেছে-

হজরত আয়েশা রাদিয়াল্লাহু আনহা বর্ণনা করেন, ‘রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ঘরে প্রবেশের পর সর্ব প্রথম মেসওয়াক করতেন।’ (মুসলিম)

এ হাদিসের আলোকে এ বিষয়টি সুস্পষ্ট যে, বাহির থেকে ঘরে ফিরলে পরিবার-পরিজনের সুস্থতা ও স্বাচ্ছন্দ্য লাভের ক্ষেত্রে প্রথমেই নিজেকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করে নেয়া জরুরি। মুখের দুর্গন্ধ ও পরিচ্ছন্নতায় মেসওয়াক করা উচিত। তাতে হাদিসের উপর যেমন আমল হবে, তেমনি বাহিরের রোগ-বালাই এবং জীবাণু ও অপরিচ্ছন্নতা থেকে মুক্তি পাবে নিজের পরিবার। আর কুরআন-সুন্নাহর অনুসরণ ও অনুকরণে রহমত ও কল্যাণ লাভ করবে মুমিন।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে নিজ ঘরে প্রবেশের ক্ষেত্রে কুরআন-সুন্নায় বর্ণিত দোয়া, জিকির ও আমল যথাযথভাবে করার তাওফিক দিন। দুনিয়ায় যাবতীয় রোগ-বালাই, অসুস্থতা ও মন্দ কাজ থেকে নিরাপত্তা ও সুস্থতা লাভের তাওফিক দান করুন। আমিন।


Comments are closed.




© All rights reserved © 2018 sangbaderpata.Com
কারিগরি সহায়তায় ইঞ্জিনিয়ার বিডি