রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ০৫:১৫ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং
জনপ্রিয় অনলাইন সংবাদের পাতায় আপনাকে স্বাগতম
সেই সন্ত্রাসী খুনের রহস্য ফাঁস, পরকীয়া প্রেমিককে নিয়ে খুন করে স্ত্রী!

সেই সন্ত্রাসী খুনের রহস্য ফাঁস, পরকীয়া প্রেমিককে নিয়ে খুন করে স্ত্রী!

সেই সন্ত্রাসী খুনের রহস্য ফাঁস, পরকীয়া প্রেমিককে নিয়ে খুন করে স্ত্রী!

Spread the love

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের পশ্চিমবঙ্গের উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার ব্যারাকপুরের একটি শহর সোদপুর। গত ১৩ জানুয়ারি রাতে সেখানেই খুন হন কুখ্যাত সন্ত্রাসী রামমূর্তি দেবার ওরফে রামুয়া। এরপরই হাওড়ার সন্ধ্যাবাজারে উদ্ধার হয় রামুয়ার পুরনো সঙ্গী গুড্ডু মানোয়ারের মৃতদেহ। প্রথমে মনে করা হয়েছিল, গুড্ডু ও তার দলবলই সম্ভবত রামুয়াকে খুন করেছে। তারপর রামুয়ার সঙ্গীরা গুড্ডুকে খুন করেছে। কিন্তু রামুয়া খুনের ঘটনায় নাটকীয় মোড় আসে শনিবার। পুলিশ রামুয়ার স্ত্রী ও ছেলেকে গ্রেফতার করতেই পর্দা ফাঁস হয় আসল ঘটনার।

ভারতের গণমাধ্যমের খবর, কার্তিক যাদব নামের এক পুরুষের সঙ্গে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক ছিল রামুয়ার স্ত্রীর। এই সম্পর্কের জন্য প্রতিদিন দাম্পত্য কলহ হত। এই পরিস্থিতিতে অতিষ্ঠ হয়ে পথের কাঁটা সরাতেই প্রেমিককে সঙ্গে নিয়ে স্বামীকে খুনের ছক কষে রামুয়ার স্ত্রীই। আর সেই খুনের জন্য রামুয়ার ছেলের ৩ বন্ধুকে ৪ লাখ টাকার বন্দোবস্ত করে রামুয়ার স্ত্রী প্রেমিক কার্তিক যাদব। তার মধ্যে ১ লাখ টাকা অগ্রিম দেওয়া হয়।

ঘটনার দিন রাতে ফ্ল্যাটের দরজা খুলে দিয়েছিল রামুয়ার ছেলেই। নেশার ঘোরে ঘুমন্ত রামুয়াকে রামুয়ারই বন্দুক থেকে গুলি করে ছেলে সমীর দেওয়ারের এক বন্ধু। ছেলের বন্ধুর হাতে রামুয়ার বন্দুক তুলে দিয়েছিলেন তার স্ত্রী কাজল। বাইরে যাতে আওয়াজ ছড়াতে না পারে তাই বালিশে বন্দুক ঠেকিয়ে গুলি করা হয়। ঘটনাস্থলেই গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু হয় রামুয়ার।
এরপর ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার হওয়া হাত ও পায়ের ছাপের সঙ্গে মিলে যায় রামুয়ার স্ত্রী ও ছেলের সঙ্গে। আর সেটাই ধরিয়ে দেয় আসল অপরাধীদের।

শনিবার স্ত্রী কাজল দেওয়ার ও ছেলে সমীর দেওয়ারকে ব্যারাকপুর আদালতে তোলা হলে বিচারক ১০ দিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেন। গতকাল-ই ছেলে সমীর দেওয়ারের ৩ বন্ধুর একজনকে দুর্গাপুর থেকে ও বাকিদের ঝাড়খণ্ড থেকে শনিবার-ই গ্রেফতার পুলিশ। আটককৃতদের কাছ থেকে নগদ ৩০ হাজার, খুনে ব্যবহৃত রামুয়ার বন্দুক ও ৫ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। এরপর রবিবার গ্রেফতার করা হয়েছে সেই কার্তিক যাদবকে।

প্রসঙ্গত, খুনের দায়ে দোষী সাব্যস্ত রামুয়া ১৬ নভেম্বর জেল থেকে ছাড়া পায়। তারপরই সোদপুরের অমরাবতীর ফ্ল্যাটে স্ত্রী, সন্তানদের নিয়ে থাকতে শুরু করেছিল এই কুখ্যাত সন্ত্রসী। গত ১৩ জানুয়ারি রাতে সেই ফ্ল্যাটেই খুন হয়ে যায় রামুয়া।

সূত্র: জি নিউজ


Comments are closed.




© All rights reserved © 2018 sangbaderpata.Com
কারিগরি সহায়তায় ইঞ্জিনিয়ার বিডি