মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ০২:৪২ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং
জনপ্রিয় অনলাইন সংবাদের পাতায় আপনাকে স্বাগতম
সৈয়দ আশরাফের মনোনয়ন অবৈধ ঘোষণার দাবি

সৈয়দ আশরাফের মনোনয়ন অবৈধ ঘোষণার দাবি

Spread the love

কিশোরগঞ্জ-১ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের মনোনয়নপত্র যথাযথ আইন মেনে দাখিল করা হয়নি এ অভিযোগ এনে তার মনোনয়নপত্র অবৈধ ঘোষণা করার দাবি জানান একই আসনের বিএনপির মনোনীত প্রার্থী রেজাউল করিম খান চুন্নু।

রোববার একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে ইচ্ছুক প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের সময় সাবেক ঢাকা বিভাগীয় স্পেশাল জজ রেজাউল করিম খান চুন্নু কিশোরগঞ্জের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরীর কাছে এ অভিযোগ করেন।

তবে রিটার্নিং কর্মকর্তা অভিযোগ আমলে না নিয়ে সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের মনোনয়নপত্রটি বৈধ ঘোষণা করেন। একই আসনে আওয়ামী লীগের অপর প্রার্থী কৃষিবিদ মশিউর রহমান হুমায়ুনের মনোনয়নপত্রটিও বৈধ ঘোষণা করা হয়। ফলে কিশোরগঞ্জ-১ আসনে আওয়ামী লীগের ২ প্রার্থীর মনোনয়নই বৈধ ঘোষণা করা হলো।

জানা গেছে, আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও জনপ্রশাসন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় থাইল্যান্ডে চিকিৎসাধীন। ফুসফুসের ক্যান্সারে আক্রান্ত জনপ্রিয় এ নেতার শারীরিক অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় সংসদ থেকে তিন মাসের ছুটি নিয়েছেন। এ অবস্থায় কিশোরগঞ্জ জেলা সদর ও হোসেনপুর উপজেলা নিয়ে গঠিত কিশোরগঞ্জ-১ আসনে সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম ও মশিউর রহমান হুমায়ুন এ দু’জনকেই দলীয় মনোনয়নের চিঠি দেয়া হয়। দলীয় মনোনয়নের চিঠি পেয়ে মশিউর রহমান হুমায়ুন এলাকায় গণসংযোগ শুরু করেন। তিনি রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে দলের মনোনীত প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দেন।

অপরদিকে, সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের পরিবারের লোকজন থাইল্যান্ড গিয়ে মনোনয়পত্রে সৈয়দ আশরাফুল ইসলামে টিপসই আনেন। এরপর রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে দাখিল করা হয় সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের মনোনয়নপত্র।

মনোনয়পত্র যাচাই-বাছাইয়ের সময় রেজাউল করিম খান চুন্নু রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ করে বলেন, একজন ব্যক্তি সুস্থ অবস্থায় থেকেও বিদেশে বসে যদি কোনো এফিডেভিট করেন কিংবা মনোনয়ন ফর্ম ফিলাপ করেন, তাহলে তার স্বাক্ষর বা টিপসই সংশ্লিষ্ট দেশে অবস্থিত বাংলাদেশ অ্যাম্বাসির কমপক্ষে একজন ফাস্ট কাউন্সিলর সত্যায়িত করতে হবে। যার পদমর্যাদা একজন ম্যাজিস্ট্রেটের সমান।

তিনি বলেন, তার ভাই ও আত্মীয়রা জানিয়েছেন সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম একজন অসুস্থ ও আনকনসাস ব্যক্তি। এজন্য আসতে পারেননি। তার মনোনয়পত্র বাংলাদেশে বসে নোটারি করা হয়েছে। যেটা করার ক্ষমতা নোটারির নেই। তাই তার হলফনামা ও ফরম আইনত বাতিল হবে। এছাড়া নতুন অাইনের বিধান অনুযায়ী ব্যাংক অ্যাকাউন্ট করে সেখানে নির্বাচনে ব্যয়ের জন্য টাকা জমা রাখতে হবে। দেশের যে কোনো ব্যাংকে ম্যানেজারের সামনে স্বাক্ষর দিয়ে অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে। কিন্তু সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম থাইল্যান্ডের হাসপাতালে চার মাস ধরে অচেতন অবস্থায় আছেন। তাই তার পক্ষে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খোলারও কোনো সুযোগ নেই। এতে কোনো অবস্থাতেই তার মনোনয়ন বৈধ হতে পারে না।

এ নিয়ে দলের হাইকমান্ডের সঙ্গে কথা বলে উচ্চ আদালতে যাবেন বলেও জানান বিএনপি প্রার্থী রেজাউল করিম খান চুন্নু।সূত্রঃ জাগোনিউজ


Comments are closed.




© All rights reserved © 2018 sangbaderpata.Com
কারিগরি সহায়তায় ইঞ্জিনিয়ার বিডি